হাসপাতালে ঢুকে সাংবাদিককে কোপাল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা

অপরাধ, 17 August 2021, 543 বার পড়া হয়েছে,

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি : চুয়াডাঙ্গা পৌরসভায় মোটরসাইকেলে ধাক্কা লাগাকে কেন্দ্র করে সোহেল রানা ডালিম (৩৬) নামের স্থানীয় এক সাংবাদিককে ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। দুদফা হামলা চালিয়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তার শরীরের বিভিন্ন স্থান ক্ষতবিক্ষত করা হয়েছে।

সোমবার (১৬ আগস্ট) রাত সোয়া ৮টার দিকে ইমার্জেন্সি সড়কের আব্দুল্লাহ সিটি মার্কেটের সামনে এবং দ্বিতীয় দফায় সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক রাজু নামের একজনকে আটক করেছে।

আহত সোহেল রানা ডালিম চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার সিঅ্যান্ডবি পাড়ার বাসিন্দা ও দৈনিক সময়ের সমীকরণ পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার।

তিনি বলেন, সোমবার রাত সোয়া ৮টার দিয়ে অফিসের উদ্দেশে মোটরসাইকেলযোগে রওনা হই। ইর্মাজেন্সি সড়কের আব্দুল্লাহ সিটি মার্কেটের সামনে পৌঁছালে একটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এ নিয়ে ছাত্রলীগ নেতা রাজু আহাম্মদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে তার সহযোগীরা পেছন থেকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আমাকে আঘাত করে। এক পর্যায়ে অটোরিকশা করে হাসপাতালে এসে চিকিৎসা নিতে শুরু করি। এমন সময় কয়েকজন হামলাকারী গালিগালাজ করতে করতে জরুরি বিভাগের মধ্যে ঢুকে আবারও ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. শাকিল জানান, সাংবাদিক ডালিমের শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখমের চিহ্ন পাওয়া গেছে। তার শরীরে দেড় শতাধিক সেলাই দেয়া হয়েছে। বর্তমানে তিনি সার্জারি ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সভাপতি সরদার আল আমিনসহ সাংবাদিক মহল এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে অভিযুক্তদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন।

চুয়াডাঙ্গা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে রাজু আহম্মদকে আটক করা হয়েছে। রাজুর সহযোগীদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে। অপরাধী যেই হোক তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।