বিজয়নগরে মডেল মসজিদে ইমাম নিয়োগ : ইউএনও,এসিল্যান্ডের বিরুদ্ধে মামলা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, 31 August 2021, 584 বার পড়া হয়েছে,
আদিত্ব্য কামাল,জনতার খবর : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরের মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের ‘পেশ ইমাম’ পদে এমপিওভুক্ত শিক্ষককে নিয়োগ দেওয়ার অভিযোগে আদালতে মামলা হয়েছে।
মঙ্গলবার শফিকুল ইসলাম নামে একজন চাকরিপ্রার্থী ব্রাহ্মণবাড়িয়ার যুগ্ম জেলা জজ (প্রথম) আদালতে মামলাটি করেন।মামলায় নিয়োগ পাওয়া শিক্ষক মেজবাহ উদ্দিনকে প্রধান আসামি করা হয়েছে। এ ছাড়া নিয়োগ প্রক্রিয়ায় সম্পৃক্ত থাকায় বিজয়নগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ফিল্ড অফিসার, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি), সহকারী মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার, উপজেলার আউলিয়ানগর সিনিয়র মাদ্রাসার অধ্যক্ষ এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের প্রশাসনিক কর্মকর্তাকে আসামি করা হয়েছে।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, বিজয়নগর উপজেলা মডেল মসজিদ নির্মাণের পর গত ১২ আগস্ট নতুন ইমাম নিয়োগে করা হয়। কিন্তু এই নিয়োগে কোনো নিয়ম মানা হয়নি। তালিকার সর্বনিন্মে থাকা মো. মিছবাহ উদ্দিন নামে এক ব্যক্তিকে ইমাম পদে নিয়োগের জন্য চূড়ান্ত চিঠি ইস্যু করা হয়েছে।
এজাহারে মিছবাহ উদ্দিন ছাড়াও বিবাদী করা হয়েছে মডেল মসজিদ নিয়োগ কমিটির সভাপতি বিজয়নগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সহকারী কমিশনার (ভূমি) বিজয়নগর, ইসলামী ফাউন্ডেশনের ফিল্ড অফিসার, সহকারী মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার, আউলিয়ানগর সিনিয়র মাদ্রাসার অধ্যক্ষ, বিজয়নগর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের এর প্রশাসনিক কর্মকর্তাকে।
মামলার বাদী শফিকুল ইসলাম বলেন, নিয়োগের ক্ষেত্রে কোনো নিয়মন না মেনে নিজেদের পছন্দমত লোক নিয়োগ প্রদান করা হয়েছে। যোগ্যতা সম্পন্ন অনেক প্রার্থী থাকলেও নিয়োগ আবেদন যে সব যোগ্যতা চাওয়া হয় তার অনেক কিছুই মিছবাহ উদ্দিনের নেই। তার পরেও তাকে গোপনে চূড়ান্ত নিয়োগ প্রদান করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে বিজয়নগরের ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দায়িত্বে থাকা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রাবেয়া আফসারের বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। তাকে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।