বিজয়নগর ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতির পর্নো ভিডিও ভাইরাল, বিব্রত নেতাকর্মীরা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, 3 June 2022, 163 বার পড়া হয়েছে,

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এসএম মাহবুব হোসাইন’কে বহিষ্কার করা হয়েছে। গত সোমবার (৩০ মে) রাতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তাকে বহিষ্কার করেন। একই সাথে বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি এমদাদ সাগরকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের প্রেস বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হওয়ার পর পরই ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এমদাদ সাগরের পর্নো ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী কার্যকলাপে জড়িত থাকার অভিযোগে এসএম মাহবুব হোসাইনকে বহিষ্কার করা হয়। একই সাথে সিনিয়র সহ-সভাপতি এমদাদ সাগরকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়। এতে ক্ষুব্ধ হয় ছাত্রলীগের একটি পক্ষের নেতাকর্মীরা। তারা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এমদাদ সাগর’কে নানান অভিযোগে অভিযুক্ত করে স্ট্যাটাস দিচ্ছেন। এছাড়াও এমদাদ সাগরের একটি পর্নো ভিডিও ফেসবুকে পোস্ট ও ম্যাসেঞ্জারে শেয়ার করছেন।

পর্নো ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিষয়টি নিয়ে সমালোচনার ঝড় তুলছে। তাদের দাবি, এভাবে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি না দিয়ে আরও যাচাই-বাছাই করা দরকার ছিল। এনিয়ে আমরা বিব্রত। এমদাদ সাগরকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি দিয়ে ক্লিন ইমেজের কাউকে এই দায়িত্ব দেওয়া দরকার ছিল।

তবে বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এমদাদ সাগর কাছে দাবি করেন ভিডিওটি তার নয়। ভিডিওটি এডিট করা করা। তিনি ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হওয়ায় একটি কুচক্রী মহল ভিডিও এডিট করে তাকে যুক্ত করেছে এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল করছে।

উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম রাজভী বলেন, ভিডিওটি আমি দেখেছি। আমি তাকে (ভারপ্রাপ্ত সভাপতি) জিজ্ঞাস করেছিলাম, তিনি জানালেন এটি নাকি এডিট করা। সমস্যা হচ্ছে, এখন টেকনোলজির যুগ।
এবিষয়ে জানতে চাইলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন শোভন বলেন, ভিডিওটি আমার নজরে এখনো আসেনি। এই বিষয়ে খোঁজ নিয়ে মন্তব্য করা যাবে। -(সরোদ)