বর্ণাঢ্য আয়োজনে প্রাণের উচ্ছাসে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বসন্তবরণ উৎসব

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, 15 February 2022, 304 বার পড়া হয়েছে,

বর্ণাঢ্য আয়োজনে-প্রাণের উচ্ছাসে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বসন্তবরণ উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। দীর্ঘ ২২ বছরের ধারাবাহিকতায় তিতাস সাহিত্য-সংস্কৃতি পরিষদ গত সোমবার ১ ফাল্গুন শহরের সুর সম্রাট দি আলাউদ্দিন সঙ্গীতাঙ্গনে এ উৎসবের আয়োজন করে।

সোমবার বিকাল ৪ টায় বাঁশির সুরের মূর্চনায় উৎসবের উদ্বোধন করেন প্রবাণ বাঁশি বাদক নুরু মিয়া। বিকাল ৪ টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টা পর্যন্ত কর্মসূচীর মধ্যে ছিলো বসন্তের সাজে সংস্কৃতিকর্মীদের সমাবেশ, শুভেচ্ছা বিনিময়, বাঁশি বাদন, স্বরচিত কবিতাপাঠ, বসন্তকথন, একক ও দলীয় আবৃত্তি ও সঙ্গীতানুষ্ঠান। তিতাস সাহিত্য-সংস্কৃতি পরিষদের সভাপতি আবৃত্তিশিল্পী রোকেয়া দস্তগীরের সভাপতিত্বে ও সাহিত্য সম্পাদক রেজা এ রাব্বী, সদস্য তাসফিয়া ইসলাম প্রমির সঞ্চালনায় স্বাগত ভাষণ দেন বসন্তবরণ উৎসব উদযাপন পরিষদের আহবায়ক ফরহাদুল ইসলাম পারভেজ।

বসন্তকথনে অংশ নেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব সভাপতি রিয়াজ উদ্দিন জামি, সাধারণ সম্পাদক জাবেদ রহিম বিজন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সাংবাদিক ইউনিয়ন সভাপতি ও সংগঠন উপদেষ্টা দীপক চৌধুরী বাপ্পী, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ডায়াবেটিক সমিতির সভাপতি ও সংগঠন উপদেষ্টা এড. তাসলিমা সুলতানা খানম নিশাত, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সাবেক সহসভাপতি সৈয়দ মো.আকরাম, সময় টিভির বিশেষ প্রতিবেদক উজ্জল চক্রবর্তী, বাউনবাইরার কতার সমন্বয়ক ডা.মাহবুবুর রহমান এমিল, সাহিত্য একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন, আবরনি আবৃত্তিচর্চা কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক হাবিবুর রহমান পারভেজ, সোনালী সকাল পরিচালক ফাহিম মুনতাসির।

ধন্যবাদ বক্তব্য প্রদান করেন তিতাস সাহিত্য-সংস্কৃতি পরিষদ সাধারণ সম্পাদক আতিকুল ইসলাম সুজন। সঙ্গীত পরিবেশন করেন বসন্তবরণ উৎসবের সদস্য সচিব সোহাগ রায়,কন্ঠশিল্পী অভিজিত রায়,তাহজীব চৌধুরী তনয়, সংগঠন সদস্য ফারদিয়া আশরাফি নাওমী, স্নেহা বিশ্বাস, মায়া চক্রবর্তী, রেজা এ রাব্বী। স্বরচিত কবিতাপাঠ করেন সংগঠনের উপদেষ্টা কবি আবদুর রহিম, কবি রুদ্র মো.ইদ্রিস, কবি মনিরুল ইসলাম শ্রাবণ।
তিতাস আবৃত্তি সংগঠনের শিল্পীরা একক ও দলীয় আবৃত্তি পরিবেশন করেন। বসন্তবরণ উৎসবকে কেন্দ্র করে সুর সম্রাট দি আলাউদ্দিন সঙ্গীতাঙ্গনের পুরো প্রাঙ্গনজুড়ে প্রাণময় পরিবেশ সৃষ্টি হয়। সংগঠন কর্মীদের মাধ্যমে বিভিন্ন স্থানে বসন্ত রংয়ের সাজ-সজ্জা সকলের নজর কাড়ে। কথা-ককিতা-বাঁশি আর গানে মাতোয়ার ছিলেন উপস্থিত দর্শক-শ্রোতা।