চুরি হওয়া সব মোবাইল কেন উদ্ধার করতে পারে না পুলিশ?

তথ্যপ্রযুক্তি, 29 August 2023, 292 বার পড়া হয়েছে,
নিউজ ডেস্ক : মোবাইল চুরি ও ছিনতাইয়ের সঙ্গে জড়িত একটি চক্রের সাতজনকে গ্রেফতারের পর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) বলছে, চক্রটি মোবাইলের আইএমইআই নম্বরও পরিবর্তন করতে পারে। চুরি করা মোবাইল ফোন যেন পুলিশ উদ্ধার করতে না পারে সে জন্যই এই ব্যবস্থা করতো তারা।

গ্রেফতাররা হলো, মো. সাইদুল ইসলাম (২১), মো. তৌহিদুল ইসলাম (৩৫), মো. সোহেল রানা (২৯), মো. রানা শেখ (২৮), মো. বেলাল হোসেন রাসেল (২৫), আমির হোসেন (৫৪) ও মো. রবিন (৩০)।

তাদের কাছ থেকে একটি মাইক্রোসকপি,একটি কম্পিউটার, দুটি ল্যাপটপ, ১৯টি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল (৫টি মোবাইল প্রকৃত মালিকদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে), একটি মোবাইলের আনলক করার সফটওয়্যার ডিভাইস, একটি আইএমইআই পরিবর্তনের সফটওয়্যার ডিভাইস, ৪টি ডাটা ক্যাবল, একটি পাওয়ার মেশিন, একটি হিটার মেশিন ও একটি রাউটার উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, আইএমইআই পরিবর্তন করতে চক্রটি তৈরি করেছে একটি ল্যাব। অবৈধভাবে আমদানি করেছে কিছু ইলেকট্রনিক ডিভাইস। এসব যন্ত্রপাতি ব্যবহার করে মাত্র কয়েক মিনিটে মধ্যে তারা একটি মোবাইল হ্যান্ডসেটের আইএমইআইটি বদলে ফেলছে। পরে বিক্রি করছে বাজারে।

পুলিশ বলছে, এ ধরনের মোবাইল ব্যবহার করে ফায়দা নিতে পারে অপরাধীরা। তাই চুরি কিংবা ছিনতাই হওয়া মোবাইল ফোন কেনাবেচা থেকে বিরত থাকার পরামর্শ গোয়েন্দাদের।

মঙ্গলবার (২৯ আগস্ট) দুপুরে নিজ কার্যালয়ে এসব কথা জানান ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।

তিনি বলেন, রাস্তার মোড়ে ছিনতাইকারীরা ওৎ পেতে থাকে। সুযোগ বুঝে তারা টান দিয়ে মোবাইলাটা নিয়ে পালিয়ে যায়। এতদিন তাদের যে প্রসেসটা দেখতাম, সেটা হচ্ছে ছিনতাই করা মোবাইলটা তারা অনেক দিন বাসায় ফেলে রাখতেন অথবা বিভিন্ন দেশে পাচার করে দিতেন। বিভিন্ন সময়ে গ্রেফতারের পর তারা সেটা স্বীকার করেন। এরপর এবার আমরা একটা চক্রের সন্ধান পেলাম, যারা আইএমইআই নম্বর পরিবর্তন করতে পারে।

হারুন অর রশীদ আরও বলেন, চক্রটি চুরি করে সঙ্গে সঙ্গেই আইএমইআই নম্বরটা পরিবর্তন করে ফেলে। কারণ আইএমইআই নম্বর পরিবর্তন না করলে আমরা খুব সহজেই মোবাইল খুঁজে পাই। এ কারণে তারা এখন নতুন প্রযুক্তি মাইক্রোস্কোপ, একটি সিপিইউ, দুইটা ল্যাপটপ, অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল নিয়ে একটি ল্যাব বানিয়েছে। ওই ল্যাবে নিয়ে তারা মোবাইলের আইএমইআই পরিবর্তন করে অন্য জায়গায় বিক্রি করে দেয়। তারা গ্যারান্টি দেয় যে এটা চোরাই মোবাইল হলেও কেউ ধরতে পারবে না।

নগরবাসীকে সচেতন করে ডিবি প্রধান বলেন, কারও মোবাইল চুরি কিংবা হারিয়ে গেলে জিডির পর গোয়েন্দা বিভাগে এসে অভিযোগ জানাতে হবে। আমরা মোবাইলসহ চোর চক্রকে গ্রেফতার করবো। এছাড়া চোরাই মোবাইল কেনাবেচা থেকেও বিরত থাকার অনুরোধ জানান তিনি।