শহিদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্তের জন্মদিন আজ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, 3 November 2021, 435 বার পড়া হয়েছে,

শহিদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত একজন বাঙালি আইনজীবী, সমাজকর্মী ও ভাষাসৈনিক। তবে তার পরিচিতি মূলত একজন রাজনীতিবিদ হিসাবে। একজীবনে দুটি স্বাধীনতা সংগ্রামে সক্রিয় ছিলেন তিনি। এগুলো হচ্ছে- ব্রিটিশশাসন-বিরোধী সংগ্রাম এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম। তিনি পাকিস্তানে বাংলাভাষার মর্যাদা-প্রতিষ্ঠার আন্দোলনের অন্যতম প্রবর্তক।

মানুষ, মানুষের অধিকার আর মাতৃভূমির প্রতি নিবেদিত এই ব্যক্তিকে এই আদর্শ ও বিশ্বাসের জন্য মূল্যও দিতে হয়েছে। ১৯৭১ সালের ২৯ মার্চ ছোট ছেলে দিলীপকুমার দত্তসহ তাকে তুলে নিয়ে যায় পাক বাহিনীর সদস্যরা। তাদেরকে ময়নামতি সেনানিবাসে নিয়ে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়। যদিও হত্যার সঠিক দিনটি জানা যায়নি। এই মহান ব্যক্তিত্বের আজ জন্মদিন। ১৯৮৬ সালের এইদিনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার রামরাইল গ্রামে জন্মগ্রহণ করেছিলেন এই কর্মবীর। বাবা জগবন্ধু দত্ত ছিলেন কসবা ও নবীনগর মুন্সেফ আদালতের সেরেস্তাদার। জীবদ্দশায় দেশমাতৃকার জন্য সবসময় কাজ করে গেছেন ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত। তিনি প্রথম ভাষাসৈনিক। ১৯৪৮ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তান গণপরিষদে উর্দু ও ইংরেজির সঙ্গে বাংলাকে মর্যাদা দেওয়ার দাবি জানিয়ে বক্তব্য দিয়েছিলেন তিনি। সে থেকেই পাকিস্তানে ভাষা আন্দোলনের আনুষ্ঠানিক সূত্রপাত। অধিবেশনের শুরুতে আলোচনার সূত্রপাত করে পূর্ব বাংলার কংগ্রেস দলীয় সদস্য ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত বলেছিলেন, বাংলা একটি প্রাদেশিক ভাষা হলেও সমগ্র পাকিস্তানের ৬ কোটি ৯০ লাখ লোকের মধ্যে ৪ কোটি ৪০ লাখ লোক বাংলা ভাষায় কথা বলে, অর্থাৎ সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগোষ্ঠী বাঙালি।

এখানে শেষ নয়। কিন্তু মহান স্বাধীনতা সংগ্রামেও অন্যতম অগ্রপথিক ছিলেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৯৭১ সালের ২ মার্চ ছাত্ররা স্বাধীন বাংলাদেশের জন্য পতাকা উত্তোলন করে। এরপর তিনি নিজ হাতে কুমিল্লার বাড়িতেও তুলেছিলেন পতাকা। এর কয়েকদিন পর তার রক্তে সিঞ্চিত হয় দেশের মাটি।