৭ শিশু হত্যার বিষয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিলেন সেই নার্স

আন্তর্জাতিক, 20 August 2023, 135 বার পড়া হয়েছে,
আন্তর্জাতিক ডেস্ক : নিজেকে শয়তান দাবি করে সদ্য জন্ম নেওয়া সাত শিশুতে হত্যা করেছেন এক নার্স। তিনি ইংল্যান্ডের উত্তরপশ্চিমের একটি হাসপাতালে নার্স হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

শুক্রবার সকালে ওই নার্স আরও ছয় নবজাতককে হত্যা করার চেষ্টা করেন। খবর রয়টার্সের

৩৩ বছর বয়সী নার্স লাকি লেটবি সদ্য জন্ম নেওয়া পাঁচ ছেলে শিশুকে এবং দুই মেয়ে শিশুকে হত্যা করেন। সুযোগ পেলেই তিনি অন্যান্য শিশুদেরও আক্রমণ করতেন। তিনি মূলত রাতের শিফটে দায়িত্ব পালন করতেন। এ ঘটনা ২০১৫ ও ২০১৬ সালের দিকের।

ম্যানচেস্টার ক্রাউন কোর্টের রায়ে লাকি লেটবিকে ভয়ঙ্কার শিশু হত্যাকারী হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া দুই শিশুকে হত্যার পদক্ষেপ নেওয়ার ব্যাপারে ওই নার্সের কোনো সংশ্লিষ্টতা না পাওয়ায় আরও ছয় শিশুকে হত্যার পদক্ষেপের বিষয়টি আমলে নেয়নি জুরি বোর্ড।

জুরি বোর্ডকে আইনজীবীরা জানান, নার্স লেটবি কিছু শিশুকে ইনসুলিনের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে ইনজেকশনের মাধ্যমে হত্যা করেছে। এছাড়া অন্যাদেরকে দুধের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে হত্যা করা হয়।

ওই নার্সকে গ্রেফতারের সময় পুলিশ তার বাসা থেকে একটি নোট উদ্ধার করে। এতে লেখা ছিল, ‘শিশুদেরকে দেখাশুনার জন্য আমি যথেষ্ট ছিলাম না। কারণ আমি একজন ভয়ঙ্কর শয়তান ব্যক্তি।

হাতে লেখা ওই নোটে বলা হয়, আমি শয়তান, আমি মরতে চাই।’

এ ঘটনায় ওই নার্সকে দীর্ঘ সময়ের জন্য কারাগারে থাকতে হতে পারে। এমনকি যাবজ্জীবনও কারাদণ্ড দেওয়া হতে পারে।

২০১৫ সালের দিকে যখন হাসপাতালের একজন সিনিয়র ডাক্তার নবজাতকদের মৃত্যুর ঘটনা দেখলেন, তখন তিনি কারণ উদ্ধারের চেষ্টা করেন। কিন্তু নির্দিষ্ট কোনো কারণ তিনি খুঁজে পাননি। এর পরই এ ঘটনার জন্য ধরা পড়েন নার্স লেটবি।