আখাউড়ায় ভূমিদস্যুদের কবল থেকে বাঁচতে বৃদ্ধার আকুতি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, 30 March 2022, 177 বার পড়া হয়েছে,

জুয়েল মিয়া,ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি:  ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় ভূমিদস্যুদের কবল থেকে রক্ষা পেতে প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেছে অসহায় এক পরিবার।

বুধবার পৌরশহরের কলেজ পাড়ার বাসিন্দা মাহতাব মিয়া বলেন,১৯৮১ সালে রাধানগর মৌজায় বর্তমানে কলেজ পাড়ায় জমি ক্রয় করে বাড়ি নির্মাণ করে বসবাস করে আসছি। বিগত ২০০৬ সালে এলাকার চিহ্নিত ভূমিদস্যু রফিকুল ইসলাম গংরা আমার বসবাসের জায়গায় তাদের জায়গা আছে দাবী করে আদালতে একটি বানোয়াট মামলা করেন। যাহা আমার সম্পত্তির সাথে কোনভাবে জড়িত নয়। মামলায় উল্লেখিত ভূমির চৌহদ্দির সীমানাও আমার ভূমির সীমানার সাথে নয়। আমার ভূমিতে তাদের অবস্থান আছে বলে উল্লেখ করলেও তারা কোন দিন কোন ভূমির দখলদার ছিল না এবং আজও নেই। মামলাটি ২০১৪ সালে আদালত খারিজ করে দেয়। পরবর্তীতে তারা আপিল করে। বিগত কিছুদিন আগে ভূমিদস্যু রফিকুল ইসলাম ও ইয়াকুব মোল্লাসহ তাদের সহযোগিরা আমার কাছে ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে। টাকা না দিলে তারা ক্ষমতার বলে আমার কাগজপত্রকে অবৈধ ঘোষণা করে দিবে বলেও হুমকি দেয়। আমি একজন নিরীহ সাধারণ মানুষ। ভূমিদস্যদের হয়রানি থেকে বাঁচতে চাই।

এসময় মাহতাব মিয়ার বৃদ্ধা স্ত্রী মমতাজ বেগম কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, আমার ছেলেরা বিদেশে হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রমের টাকা দিয়ে গর্ত জায়গাটি ভরাট করে বাড়ি করেছে। মাননীয় আইনমন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমাদের শতকোটি অনুরোধ আমরা ভূমিদস্যুদের কবল থেকে মুক্তি চাই। আমাদেরকে শান্তিতে বাঁচতে দিন।

এব্যপারে জানতে চাইলে অভিযুক্ত রফিকুল ইসলাম বলেন, আমি এ বিষয়ে কিছু জানি না। আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করেছে।