আখাউড়ায় খেলনা পিস্তলসহ জনতার হাতে ২ যুবক আটক

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, 25 August 2022, 111 বার পড়া হয়েছে,

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় খেলনা পিস্তল দিয়ে সালিশবৈঠকে প্রতিপক্ষকে ভয়ভীতি প্রদর্শনের সময় দুই যুবককে আটক করেছে স্থানীয় জনতা।

খবর পেয়ে আখাউড়া থানা পুলিশ দুটি খেলনা পিস্তলসহ উপজেলার উত্তর ইউনিয়নের রামধনগর গ্রামের লিটন মিয়ার ছেলে রবিন (২৫) ও একই গ্রামের দুলাল মিয়ার ছেলে রাব্বিকে (২৪) আটক করে।

জানা গেছে, আখাউড়া উপজেলার উত্তর ইউনিয়নের রামধনগর গ্রামের রবিন মিয়া একটি মোবাইল ফোন পাশের বাড়ির নিজাম মিয়ার ছেলে সাকিবের কাছে বিক্রি করে। কিন্তু সম্প্রতি মোবাইল ফোনটি লক (বন্ধ) হয়ে যাওয়ায় সাকিব রবিন মিয়াকে লক খুলে দিতে বলে।

কিন্তু রবিন মোবাইলের লক খুলে দিতে না পারায় সাকিব টাকা ফেরত চায়। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। বিষয়টি আপস-মীমাংসার জন্য বুধবার বিকালে দুপক্ষের লোকজন এলাকায় সালিশবৈঠকে বসেন। ওই সালিশবৈঠকে উভয়পক্ষের মধ্যে বাগবিতণ্ডা শুরু হলে একপর্যায়ে রবিন ও রাব্বি কোমর থেকে পিস্তল বের করে হত্যার হুমকি দেয়। এ সময় মুহূর্তেই মানুষজনের মধ্যে আতঙ্ক ছাড়িয়ে পড়ে। তৎক্ষণাৎ উপস্থিত লোকজন রবিন ও রাব্বির কাছ থেকে পিস্তল দুটি কেড়ে নেয় এবং তাদের আটক করে।

সালিশকারক মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ বলেন, সাকিব একই এলাকার বাসিন্দা রবিনের কাছ থেকে একটি মোবাইল ফোন কিনে। মোবাইলটি ছিল ভারত থেকে কিস্তির মাধ্যমে কিনে আনা। কিস্তি পরিশোধ না করায় মোবাইল ফোনটি সম্প্রতি বন্ধ হয়ে যায়। মোবাইলের লক খুলে দিতে না পারায় সাকিব তার টাকা ফেরত চায়।

এ নিয়ে সমস্যা সমাধানে উভয়পক্ষ সালিশবৈঠকে বসেন। ওই বৈঠকে একপর্যায়ের ওই যুবকরা পিস্তল উঁচিয়ে হত্যার হুমকি দিলে উপস্থিত লোকজন তাদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।

আখাউড়া থানার ওসি আসাদুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ওই দুই যুবককে আটক করা হয়।  এ সময় পরীক্ষা করে দেখা যায় ওই দুটি খেলনা পিস্তল।