ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রেম করে বিয়ে, ছয় মাস পর গৃহবধূর আত্মহত্যা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, 8 August 2021, 492 বার পড়া হয়েছে,
আদিত্ব্য কামাল : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে প্রেম করে বিয়ের ছয় মাসের মাথায় বিষ পানে  রুপালী (২০) নামে এক গৃহবধুর আত্মহত্যার অভিযোগ উঠেছে।
রবিবার গৃহবধূর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদরের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। এর আগে শনিবার(৭ আগস্ট) রাতে উপজেলা সদরের পাথর ঘাট এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। সে ঐ এলাকার লিটন মিয়ার মেয়ে।
নিহতের পরিবার ও স্হানীয়রা জানান, প্রেম করে  সিএনজি চালক সোহাগ মিয়ার সাথে বিয়ে হয় রুপালীর। বিয়ের পর থেকে স্বামী সোহাগ মিয়া ও তার মধ্যে বাকবিতণ্ডা চলত। শনিবার দুপুরে তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে  ঝগড়া হলে বিকেলে বাবার বাড়ি চলে আসে সে। রাতে বিষ খেয়ে ফেলে। পরিবারের লোকজন আহত অবস্হায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কিছুক্ষণের মর্ধ্যে সে মৃত্যু বরণ করে।
আশুগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে আসার কিছুক্ষণ পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।
আশুগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: আজাদ রহমান বলেন, হাসপাতাল কতৃপক্ষ মার্ধ্যমে খবর পেয়ে তার মরদেহ উদ্ধার করি। ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে  পাঠিয়েছি। ৬/৭ মাস আগে প্রেম করে তার বিয়ে হয়েছিল। রুপালী বিয়ের পর থেকে বাবার বাড়ি সাথে ভাল সম্পক ছিলনা। তদন্ত স্বাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্হা নেওয়া হবে ।