ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ভাদুঘরে গৃহবধূকে নির্যাতনের অভিযোগ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, 27 March 2022, 500 বার পড়া হয়েছে,

ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের ভাদুঘর টিঅ্যান্ডটি এলাকায় স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে এক গৃহবধূকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে।

মুন্নি (৩৫) নামে ওই গৃহবধূ বর্তমানে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার অষ্টগ্রামের রফিক উদ্দিনের মেয়ে।

এ ঘটনায় গত ২৪ মার্চ মুন্নির স্বামী আনিছ মিয়াসহ একই পরিবারের দানিছ মিয়া (২৯), আলী মিয়া (৫৫), আল আমীন (২৭), তাসকিয়া (২০), তানজিনা (২৫) ও স্বপ্না বেগমের (৩০) নাম উল্লেখ করে সদর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের ভাদুঘর টিঅ্যান্ডটি পাড়ার শাহজাহান মিয়ার ছেলে আনিছ মিয়ার সঙ্গে মুন্নির বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে মুন্নির স্বামীর বাড়ির লোকজন তাকে তাড়িয়ে দেওয়ার জন্য নানা ষড়যন্ত্র করে আসছে। বিভিন্ন সময় তারা মুন্নিকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের পাশাপাশি তাকে অনাহারে রাখা হতো।

গত ২৪ মার্চ মুন্নি তার স্বামীর বাড়িতে গেলে আনিছ মিয়ার নির্দেশে তার পরিবারের সদস্যরা ধারাল দা ও লোহার রড দিয়ে কুপিয়ে আহত করে এবং হাত-পা বেঁধে ঘরের পেছনে ফেলে রাখে।

পুলিশ স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে খবর পেয়ে মুন্নিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠায়।

এ বিষয়ে আহত মুন্নির সঙ্গে কথা হলে তিনি জানান, দাম্পত্য জীবনে তিনি নানাভাবে নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। বিভিন্ন সময় তাকে মারধর করা হয়। সবশেষ তাকে কুপিয়ে আহত করা হয়েছে। এ ঘটনায় ২৪ মার্চ থানায় একটি অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। তিনি ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন।

এ বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ওসি মো. এমরানুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় আমরা একটি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টির তদন্তকাজ চলমান রয়েছে।