নারী মানেই সুন্দরের সমাহার -মনিরুল ইসলাম শ্রাবণ

সাহিত্য, 8 March 2024, 44 বার পড়া হয়েছে,

মানুষ ছাড়া প্রাণীকুলের আর সকল বাচ্চাই জন্মের পর পর খাওয়া-দাওয়া, হাঁটাচলা, ওড়াউড়ি, সাঁতার কাটা বা দৌড়ানো শিখে যায়। মানবশিশু এগুলো শিখতে সময় লেগে যায় বেশ কয়েক বছর। ততদিনে প্রাণিকুলের অন্যান্য বাচ্চারা পরিণত হয়ে নিজেরা বাচ্চা জন্ম দিয়ে বৃদ্ধ কালে পৌঁছে যায়। দশ মাসের অধিক সময় একজন মানব শিশুকে পেটে ধারণ এবং জন্মের পর কয়েক বছর তার সমুদয় আদর-যত্ন করেন যে নারী- তিনিতো আমাদের মা। পৃথিবীতে এই মার চেয়ে সুন্দর আর কে হতে পারে ?

নারী মানেই সুন্দর
সহধরা বোনের সাথে এক প্লেটের খাবার ভাগাভাগি করে খাওয়া। ঝগড়া, খুনশুটি, লেখাপড়া আর সুখ-দুঃখের ভাগাভাগি করে বড় হয় যে বোনটি, ভাইয়ের ভালো-মন্দ, সুখ-দুঃখের সবচেয়ে বেশি চিন্তিত হয় যে বোনটি। তার চেয়ে সুন্দর আর পৃথিবীতে কে হতে পারে ?

নারী মানেই সুন্দর
ধর্ম, আইন-আদালত, সমাজ আর পরিবারের শাসনের ভয়, লোকলজ্জা আর বন্ধু-বান্ধবীর তিরস্কার উপেক্ষা করে তোমাকে একনজর দেখার জন্য দূর থেকে ফলো করে যে মেয়েটি। লুকিয়ে লুকিয়ে তোমাকে টেক্সট করে, পার্কে, স্কুলের বারান্দায় দুটো কথা বলতে চায় যে মেয়েটি- তার থেকে সুন্দর আর কে হতে পারে ?

নারী মানেই সুন্দর
ভিন্ন পরিবেশে, ভিন্ন পরিবারের বড় হয়েও মাঝ জীবনে তোমার সঙ্গী হয়ে, আজীবন সুখ-দুঃখের ভাগীদার হয় যে নারীটি। নিজের সর্বস্ব ত্যাগ করে, নিজেকে উজাড় করে তোমার সেবা যত্নে, তোমার সংসারের হাল ধরে যে বধূটি- তার থেকে আর সুন্দর কে হতে পারে ?

নারী মানেই সুন্দর
রক্ত আর পানিতে চুবুচুবু হওয়া নিতান্ত অসহায় যে কন্যাসন্তান তোমার হাতে তুলে দিল কেউ। যে সন্তান বড় হয়ে আল্লাহ, রাসূল, ঈশ্বর, ভগবান চেনার আগে, রাজা, বাদশা চেনার আগে, অর্থ-সম্পদ চেনার আগে তোমাকেই সবকিছু মনে করে। সমস্ত আদর আবদার অভিযোগ তোমার কাছেই করে। সেই সন্তানের চেয়ে সুন্দর আর কে হতে পারে ?

নারী মানেই সুন্দর
অচেনা অপরিচিত একটি ছেলে বা পুরুষ মানুষ দেখলে যে নারীরা নিজেকে অনিরাপদ ভাবে অথবা লজ্জা পায়, কিংবা কিছু বলতে সংকোচ বোধ করে। সে নারীটিই আবার নিজের সব লজ্জা, অসংকোচ বা নিরাপত্তার কথা না ভেবে অনাত্মীয় পুরুষের সাথে মিলেমিশে হাট-বাজারে, অফিস-আদালতে কাজ করে। এই যে একটি নারী তোমাকে সহকর্মী ভাবে, তোমার কাছে নিজেকে নিরাপদ ভাবে, তোমার কাছে নিজের কাজের মূল্যায়ন খোঁজে- পুরুষের কাছে এর চেয়ে একটি সুন্দর দৃশ্য আর কি হতে পারে ?

অথচ তুমি নারীর সৌন্দর্য খোঁজো রাস্তায় হেঁটে যাওয়া অচেনা কারো মাঝে। তুমি নারী সৌন্দর্য খোঁজো একটা মেয়েকে অশ্লীল কথা বলে, ইভটিজিং করে। তুমি নারীর সৌন্দর্য খোঁজো কাউকে ভুলিয়ে-ভালিয়ে গাছের আড়াল, রেস্টুরেন্টের গোপন কক্ষে, খালি ফ্ল্যাট বা হোটেলের কামড়ায় নিয়ে। সোশ্যাল মিডিয়ায় চেনা বা অচেনা মেয়েদের আইডির কমেস্ট বক্স বা ইনবক্সে অশ্লীল কথা বলে বা গালাগালি করে।

অন্যের মা, অন্যের বোন, অন্যের বউ, কন্যার মাঝে তুমি নারীর সৌন্দর্য খোঁজো। অথচ তোমার নিজের ঘরেই, নিজের আশেপাশেই আছে পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর নারীরা। যাদের সাথে কাটানো মুহূর্ত তোমাকে প্রকৃত সুখের সন্ধান দিবে। যাদের আদর, স্নেহ, ভালোবাসা, মায়া, মমতা তোমাকে পৃথিবীতে স্বর্গের সুখ দেবে। যাদের প্রতি যথাযথ দায়িত্ব পালন সত্যিকারের তোমাকে পুরুষ হিসেবে চিহ্নিত করবে এবং একজন পুরুষ হিসেবে সমাজের কাছে তোমার প্রকৃত সৌন্দর্য ফুঁটে উঠবে।

মোটকথা নারীর সৌন্দর্য শুধু তার দেহের সৌষ্ঠব্যে নয়। নারী সৌন্দর্য তার অবস্থানে, তার সকল কাজে। নারীত্বেই নারীর প্রকৃতি সৌন্দর্য। নারী মানেই সুন্দরের সমাহার। সুতরাং হে পুরুষ সমাজ ‘সুন্দরী নয়, সুন্দরের পূজারি হও। যা কিছু ভালো, যা কিছু মঙ্গল- তার পূজারি হও’।

নারী মানেই সুন্দরের সমাহার -মনিরুল ইসলাম শ্রাবণ