নবীনগরে চায়ের দোকান থেকে ‘তুলে নিয়ে’ কুপিয়ে হত্যা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, 25 November 2021, 395 বার পড়া হয়েছে,
আদিত্ব্য কামাল : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে চায়ের দোকান থেকে তুলে নিয়ে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
উপজেলার রতনপুর ইউনিয়নে খাগাতোয়া গ্রামে বৃহস্পতিবার সকালে এই ঘটনা ঘটে।
নিহত ব্যক্তির নাম মো. মাসুদ। তার বাড়ি খাগাতোয়া গ্রামেই।
স্থায়ী সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবত স্থানীয় কালু মিয়া ও যাদব মিয়ার সাথে মোহাম্মদ মাসুদের বিরোধ চলে আসছিল। বৃহস্পতিবার ভোরো তার ভাগ্নিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ডাক্তার দেখানোর উদ্দ্যেশ্য বাড়ি থেকে বের হয়ে খাগাতুয়া ভোরের বাজারে চা পান করতে যান। এসময় সময় ৩টি সিএনজি যোগে একদল যুবক এসে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে মাসুদকে রক্তাক্ত করেন। গুরুতর আহত অবস্থায় সিএনজি যোগে উঠিয়ে নিয়ে গিয়ে খাগাতুয়া পশ্চিম পাড়া কবরস্থানের সামনে দ্বিতীয় দফায় কুপিয়ে রক্তাক্ত করে। এতে তার হাত ও পায়ের রগ কেটে গুরুতর আহত অবস্থায় রাস্তায় ফেলে দিয়ে যায় দূর্বৃত্তরা। পরে স্থানীয় লোকজন মাসুদকে উদ্ধার করে আশংকাজনক অবস্থায় নবীনগর সরকারী হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকায় প্রেরণ করেন। ঢাকা নেওয়ার পথিমধ্যে দুপুরে মাসুদ মারা যায়। মাসুদের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে যাবার পরপরই এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখতে রতনপুর ইউনিয়নে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুর রশিদ বলেন,পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এই ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে। প্রাথমিক অবস্থা কয়েকজনকে শনাক্ত করা গেছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ রয়েছে, অভিযোগের ভিত্তিতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।