গাড়ি কেনার ২০ লাখ টাকা সরাইলে মারামারি মামলার ফি পেয়েছি: ব্যারিস্টার সুমন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, 17 September 2022, 117 বার পড়া হয়েছে,
নিউজ ডেস্ক : ব্যারিস্টার সৈয়দ সাইদুল হক সুমন বলেছেন, ‘আমি একটি ল্যান্ডক্রোজার গাড়ি নিয়ে এসেছি। আমার এই গাড়িটির দাম এক কোটি টাকা। এই গাড়ি কিনতে বাপ-মা থেকে ৩০ লাখ, ব্যাংক লোন করেছি ৫০ লাখ, আর বাকি টাকা পেয়েছি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে টেঁটা মারামারির মামলা লড়তে হাইকোর্টে ২০লাখ টাকা দিয়েছে। তারা মারামারি করে আর আমি সিলেটি পোলা বসে বসে মাল বানাই।

শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার লাউর ফতেহপুর মাঠে ব্যারিস্টার সুমন ফুটবল একাডেমি ও ব্যারিস্টার জাকির একাদশের মধতে এক প্রীতি ফুটবল ম্যাচ শেষে তিনি এক বক্তব্যে এই কথা বলেন।

এসময় ব্যারিস্টার সৈয়দ সাইদুল হক সুমন বলেন,  সরাইলের মানুষদের বলে দিবেন, যত বেশি মারামারি করবেন আমি আরেকটি গাড়ি কেনা সময় হয়ে যাবে। একটি টেটা মারামারি মামলায় হাইকোর্টে ৫ লাখ টাকা খরচ হয়, এই টাকা যায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মাটি থেকে। আমি চাই না কোন গরীব মানুষের টাকা নিতে। আমি বলে যাচ্ছি, আপনারা টেঁটা মারামারি করেন বলেই আজ সিলেট-বরিশালের ব্যারিস্টাররা মালেমাল হয়ে যাচ্ছে। তিনি মারামারি বন্ধে সবার ভূমিকা রাখার আহবান জানান।

ব্যারিস্টার সুমন আরও বলেন, আমি ঢাকায় গেলে অনেকেই জিজ্ঞাসা করবে, ‘ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় টেটা মাইর খাইছেন কিনা? আমি তাদের বলবো, তোমরা যারা ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে সন্দেহ করো, তারা তোমাদের টেটা মাইর দিছে। আমি সিলেটি পোলা বলে গেলাম, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পোলা আশি টাকা তোলা।’