গাজীপুরের নির্ভানা রিসোর্টে জাগ্রত মিলন মেলায় ৫০ জন গবেষককে ডক্টরেট নক্ষত্র সম্মাননা প্রদান

জনতার কন্ঠ, 2 December 2023, 141 বার পড়া হয়েছে,

বিশেষ প্রতিনিধি: ভারত বাংলাদেশের ৩ হাজার বরেণ্য সাহিত্যিক,শিক্ষাবিদ, সাংবাদিক, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাহিত্য প্রেমীদের প্রাণবন্ত উপস্থিতিতে সম্পন্ন হলো জাগ্রত মিলন মেলা।

গত ১ ডিসেম্বর (শুক্রবার) দিনব্যাপী গাজীপুরের নির্ভানা রিসোর্টে এ মিলন মেলার আয়োজন করা হয়।
“জাগ্রত ব্যবসায়ী ও জনতা বাংলাদেশ” এর বাৎসরিক মিলন মেলা ২০২৩ উদযাপন উপলক্ষ্যে এক জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের ৫০ জন ডক্টরেট ডিগ্রিধারী, ২০ জন মুক্তিযদ্ধা, সংবাদপত্রে বিশেষ অবদানের জন্য ২০ জন এবং সাহিত্যে অবদানের জন্য বাংলাদেশের ২০ জন এবং ভারতীয় ১৬ জনকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।
অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন জাগ্রত মহানায়ক শিহাব রিফাত আলম, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আলহাজ্জ্ব এডভোকেট মো. জাহাঙ্গীর আলম (সাবেক মেয়র, গাজীপুর, সাবেক সেক্রেটারি বাংলাদেশ আওয়ামিলীগ, গাজীপুর মহানগর), অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন প্রফেসর ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকী (সাবেক উপাচার্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়)। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মো. নজরুল ইসলাম আজাদ (ডেপুটি সেক্রেটারি, শিপিং মন্ত্রনালয়) এছাড়াও বাংলাদেশের প্রায় সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর, বরেণ্য ব্যক্তিবর্গ। অনুষ্ঠানে কুষ্টিয়ার কৃতি সন্তান প্রফেসর ড. রেজাউল করিম (বাংলা বিভাগ, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়), ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার খ্যাতিমান কবি, জাতীয় দৈনিক ঐশী বাংলার সাহিত্য সম্পাদক ড. এস এম শাহনূর,ডক্টর ফোরকান উদ্দিন আহমেদ, প্রফেসর ড. আ ন ম মেশকাত উদ্দিন, প্রতিষ্ঠাতা ভাইস চ্যান্সেলর সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটি, ড. কামরুল ইসলাম খান, ড. অমিত কর চ্যাটার্জি, প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জিয়াউল হক মামুন, প্রো ভিসি, ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি, ডক্টর মো. হাফিজুর রহমান মৌলভীবাজার, ড. জাহিদ আহমেদ চৌধুরী ড. এম শহীদুল ইসলাম এডভোকেট, প্রফেসর ড. জমির হোসেন, ডক্টর মুহম্মদ এমদাদ হাসনায়েন কুষ্টিয়া, ডক্টর সারিয়া সুলতানা কুষ্টিয়া ড. খান আসাদুজ্জামান, ডক্টর শহীদ মন্জু, প্রফেসর ড. তারেক মাহমুদ আবীর, ডক্টর মুনজিত রায়, পশ্চিমবঙ্গ, ডক্টর সন্দীপন রায়, ডক্টর অমিত চ্যাটার্জি পশ্চিমবঙ্গ। কুষ্টিয়া মিরপুরের কৃতি সন্তান ড. মো. হাফিজুর রহমান লিটু, কুষ্টিয়ার ড.মো. ইমদাদ হাসনায়েন, ড. মো: হাফিজুর রহমান, ড. শরীফ আব্দুল্লাহ হিস সাকি,  ড. জাহাঙ্গীর আলম রুস্তম এবং ড. সুরাইয়া সুলতানা ডি-৫০ নক্ষত্র সম্মাননা লাভ করেন। সন্ধ্যার পর এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এ মিলন মেলার সমাপ্তি ঘটে।