কসবায় সামাজিক সংগঠন “সবুজ সংঘ”র শিক্ষা বৃত্তি, মানবিক ভাতা ও ঈদ সামগ্রী বিতরণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, 1 May 2022, 171 বার পড়া হয়েছে,

শেখ মো. কামাল উদ্দিন, কসবা (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) সংবাদদাতা : ‘সবুজ সংঘ” আর্ত মানবতার সেবায় নিয়োজিত একটি বেসরকারি সামাজিক সংগঠন। বেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা বৃত্তি, বিশেষ মানবিক চাহিদা সম্পন্ন নারী-পুরুষদের মানবিক ভাতা ও অসচ্ছল নাগরিকদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণের বিশেষ আয়োজন ছিল ১ মে ২০২২, রোববার।
‘আমরা ভালবাসি মানুষকে’ শ্লোগানকে সামনে রেখে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার খাড়েরার এ সংগঠনটি সরকারি মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ প্রাপ্ত তিন শিক্ষার্থী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজে অনার্সে অধ্যয়নরত অসচ্ছল সাত শিক্ষার্থীকে আর্থিক শিক্ষা বৃত্তি, ২৪ জন বিশেষ মানবিক চাহিদা সম্পন্ন নারী-পুরুষকে মানবিক ভাতা এবং ১৬০ জন অসচ্ছল মানুষের মাঝে ঈদ সামগ্রী খাড়েরা বাজারে আনুষ্ঠানিকভাবে বিতরণ করা হয়। এতে আর্থিক সহযোগিতা করেছেন অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী ডক্টর কামাল মাহমুদ এবং লন্ডন প্রবাসী বশির আহমেদ। সবুজ সংঘের সম্বনয়কারী সাংবাদিক মো. লোকমান হোসেন পলার সঞ্চালনায় এবং খাড়েরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা মো. কবির আহমেদ খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কসবা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রাশেদুল কাউছার ভূইয়া। বিশেষ অতিথি ছিলেন কসবা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ উল আলম, খাড়েরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আইনজীবী আবু আবদুল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক মীর হেলাল, কসবা প্রেসক্লাব সভাপতি মো. আবদুল হান্নান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক শেখ মো. কামাল উদ্দিন, আবুল কালাম আজাদ, কসবা টি.আলী কলেজের ইংরেজী প্রভাষক মো. আলমগীর ওসমান ভূইয়া, দৈনিক প্রথম আলো কসবা প্রতিনিধি মো. সোহরাব হোসেন, ছাত্রলীগ কসবা উপজেলা যুগ্ম আহ্বায়ক কাজী মানিক প্রমুখ। সামাজিক সংগঠন সবুজ সংঘ ২০২১ সালের ৪ নভেম্বর প্রতিষ্ঠিত হয়। সংগঠনটির উদ্যোগে ২৪ জন বিশেষ মানবিক চাহিদা সম্পন্ন নারী-পুরুষকে প্রতি মাসে ৫শ’ টাকা হারে ভাতা প্রদান করা হয়। ১০ জন এসএসসি পরীক্ষার্থীকে ফরম ফিলাপের জন্য দেওয়া হয়েছে ২০ হাজার টাকা। চিকিৎসার জন্য গরীব ও অসহায়দের দেওয়া হয়েছে ৫৮ হাজার টাকা। ১লা রমজান ৫৩ জন গরীব মানুষের মাঝে ১১ কেজি করে রোজার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

রোববার শিক্ষা বৃত্তি দেওয়া হয়েছে ৮৭ হাজার টাকা, ১৬০ জন গরীব ও অসহায় মানুষের মাঝে দেওয়া হয়েছে সেমাই, চিনি, ন্যুডুলস, পোলার চাউল, গুড়া দুধ ও সাবান।
সংগঠনটির এক বছর পর আংশিক কমিটি গঠন করা হয়েছে। সংগঠনের সম্বনয়কারী মো. লোকমান হোসেনকে সভাপতি, হামজা মাহমুদকে সাধারণ সম্পাদক, রিমন ভূইয়াকে সাংগঠনিক সম্পাদক এবং রুহুল আমিনকে অর্থসম্পাদক করা হয়েছে। সংগঠনটির সম্বনয়কারী নব নিযুক্ত সভাপতি মো. লোকমান হোসেন বলেন, এক বছর ধরে সংগঠনটির মাধ্যমে সামাজিক উন্নয়ন ও গরীব অসহায় মেধাবী শিক্ষার্থীদের আর্থিক অনুদান, মানবিক ভাতা, গবীরদের চিকিৎসা ও আর্থিক অনুদানের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এ পরিধি আরো বৃদ্ধি করা হবে। অনুদান প্রদানকারীগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।