আখাউড়ায় স্থলবন্দরে শুল্ক স্টেশনের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা ও দুই সিপাহীকে মারধরের ঘটনায় একজন আটক

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, 16 March 2024, 17 বার পড়া হয়েছে,
ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় স্থলবন্দরে শুল্ক স্টেশনের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা ও দুই সিপাহীকে মারধরের ঘটনায় হৃদয় নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।
গতকাল শুক্রবার বিকেলে এ মারধরের ঘটনা ঘটে। মারধরের শিকার আখাউড়া স্থল শুল্ক স্টেশনের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা মো. কামরুল পারভেজ বাদী হয়ে শুক্রবার রাতেই চারজনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেছেন।
আটককৃত হৃদয় স্থলবন্দরের ব্যবসায়ী ইদন মিয়ার ছেলে।
শনিবার (১৬ মার্চ) আখাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোঃ নূরে আলম আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বেলা সাড়ে তিনটার দিকে ভারত ফেরত এক বা একাধিক যাত্রী সাত-আটটি ব্যাগে করে মালামাল নিয়ে আসেন।
নিয়ম অনুসারে কাস্টমসের লাগেজ স্ক্যানিংয়ের কক্ষে না নিয়ে সিএনজি চালিত অটোরিকশায় উঠিয়ে ফেলা হয়। তখন কাস্টমসের পক্ষ থেকে এসব পণ্য স্ক্যানিং কক্ষে নিয়ে যাওয়ার অনুরোধ করা হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয় স্থানীয় কতিপয় যুবক। তারা এ নিয়ে কাস্টমসের লোকজনের সঙ্গে বাগবিতন্ডার জড়িয়ে পড়েন এবং হামলায় উদ্যত হন। এরই ফাঁকে মালামাল নিয়ে ওই অটোরিকশা সটকে পড়ে। তাৎক্ষণিকভাবে কাস্টমস কর্তৃপক্ষও তাদের পিছু নিয়ে আখাউড়া- আগরতলা সড়কের বঙ্গের চর মসজিদের সামনে অটোরিকশাটি আটক করা হলে স্থানীয় ওই যুবকরা কাস্টমসের লোকজনের উপর চড়াও হয়।
এতে আখাউড়া স্থল শুল্ক স্টেশনের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা মো. কামরুল পারভেজ এবং সিপাহী মো. ইমন মিয়া ও মো. জুম্মান আহত হন। স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে তাদেরকে উদ্ধার করে। এর মধ্যে আহত একজন আখাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে চিকিৎসা নেয়।
আখাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোঃ নূরে আলম বলেন, কাস্টমসের কর্মকর্তাদের উপর হামলার ঘটনায় আখাউড়া স্থল শুল্ক স্টেশনের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা মো. কামরুল পারভেজ বাদী হয়ে শুক্রবার রাতেই
চারজনকে আসমাী করে মামলা দিয়েছেন। রাতেই এজাহারনামীয় একজনকে আটক করে শনিবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বাকীদেরকে আটকে চেষ্টা চলছে।