আওয়ামীলীগে যোগ দিলেন বেগম খালেদা জিয়ার সাবেক উপদেষ্টা একরামুজ্জামান এমপি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, 16 February 2024, 15 বার পড়া হয়েছে,
মোঃ নিয়ামুল ইসলাম আকঞ্জি,ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ (নাসিরনগর) আসনের সংসদ সদস্য ও বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার সাবেক উপদেষ্টা সৈয়দ এ কে একরামুজ্জামান এমপি আওয়ামী লীগে যোগ দিয়েছেন। মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর উত্তরা বোট ক্লাবে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি র. আ. ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরীর কাছে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি আওয়ামীলীগে যোগ দেন।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর উত্তরা বোট ক্লাবে সংসদ সদস্য সৈয়দ এ,কে  একরামুজ্জামানের উদ্যােগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার সকল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদস্যদের মিলিয়ে প্রায় ৩০০ জনপ্রতিনিধি ও আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী র, আ, ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী। সভায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে আওয়ামী লীগে যোগ দেন। এ সময় গণপূর্ত মন্ত্রীও তাকে আওয়ামী লীগে বরণ করে নেন। সভায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া -২ (সরাইল- আশুগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য মঈন উদ্দিন মঈন, জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি মোঃ হেলাল উদ্দিন, সহ সভাপতি হেলাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল বারী চৌধুরী মন্টু অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।
এ বিষয়ে সাংসদ সৈয়দ এ,কে একরামুজ্জামান জানান, ঘরের ছেলে ঘরে ফিরে এসেছি। আমি নাসিরনগরের সার্বিক উন্নয়নে নিবেদিতভাবে কাজ করে যেতে চাই।
প্রসঙ্গত, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে অংশ নেন একরামুজ্জামান। এজন্য তাকে বিএনপি থেকে বহিস্কার করা হয়।
তিনি আর এ কে সিরামিকসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। নির্বাচনে স্থানীয় আওয়ামী লীগ, বিএনপির বর্তমান ও সাবেক নেতা-কর্মীরা একরামুজ্জামানকে সমর্থন দেন। এই আসনে জাতীয় পার্টির লাঙ্গলের প্রতীকের প্রার্থী শাহনুল করিম এবং আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন চাওয়া ছয়জন নেতাও তাকে সমর্থন দেন। তারা প্রকাশ্যে একরামুজ্জামানের পক্ষে মাঠে সরব ছিলেন। নির্বাচনে তিনি  ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ (নাসিরনগর) আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য ও নৌকার প্রার্থী বি এম ফরহাদ হোসেনকে বিপুল ভোটে হারিয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।